স্পোর্টস ডেস্ক

পোর্ট এলিজাবেথ টেস্টের দ্বিতীয় দিনে দক্ষিণ আফ্রিকার প্রথম ইনিংসের ৯৫তম ওভারে খালেদের বল রক্ষণাত্মক ভঙ্গিতে খেলেন কাইল ভেরেইনা। এরপর বলটি কুঁড়িয়ে তা ভেরেইনার দিকে ছুঁড়ে মারেন খালেদ আহমেদ। বল আঘাত হানে ভেরেইনার গ্লাভসে। এবার এই ঘটনায় আইসিসির কাছ থেকে শাস্তি পেলেন সৈয়দ খালেদ আহমেদ। আর সেই শাস্তি মাথা পেতেও নিয়েছেন তিনি। বিজ্ঞাপন

ভেরেইনাকে বল ছুঁড়ে মেরে অবশ্য সেই সময় ক্ষমা চেয়েছিলেন খালেদ। তবে তাতে রক্ষা হয়নি তার। বল ছুঁড়ে মারার সে ঘটনায় আইসিসির আচরণবিধি ভাঙায় বাংলাদেশের এই পেসারকে জরিমানা করেছে আইসিসি। ম্যাচ ফির ১৫ শতাংশ জরিমানা হয়েছে তার। একই সঙ্গে তার নামের পাশে একটি ডিমেরিট পয়েন্টও যোগ করেছে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থাটি।

আইসিসির আচরণবিধির ২.৯ অনুচ্ছেদ ভাঙায় দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন খালেদ। বিজ্ঞাপন

সে ঘটনায় তখনই উত্তেজনা ছড়ায়। যদিও সঙ্গেসঙ্গেই দুঃখ প্রকাশ করে ক্ষমা চেয়েছিলেন খালেদ। কিন্তু ভেরেইনা মানতে নারাজ ছিলেন। পরে স্লিপ থেকে দৌড়ে এসে পরিস্থিতি শান্ত করার চেষ্টা করেন ইয়াসির আলী। তখন খালেদকে সতর্ক করে মুমিনুল হকের সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে কথা বলেন আম্পায়াররা।

সারাবাংলা/এসএস